Home / অর্থ-বাণিজ্য / এগ্রো পোল্ট্রি ফিসারিজ খাতে ৫ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি

এগ্রো পোল্ট্রি ফিসারিজ খাতে ৫ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি

অর্থনীতি ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : কোভিড-১৯ ভাইরাসের প্রভাবে দেশীয় এগ্রো, পোল্ট্রি, ফিসারিজ খাতে অন্তত পাঁচ হাজার কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। গড়ে প্রতিদিন ক্ষয়ক্ষতি ঘটছে প্রায় আড়াই কোটি টাকা। বাজারে দরপতন এবং উৎপাদিত পণ্য বাজারজাত করতে না পারার কারণে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন সাধারণ খামারি থেকে শুরু করে শিল্প উদ্যোক্তারা। এছাড়া চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পরিচালিত পিআরটিসি ল্যাবটি বন্ধ থাকায় বন্দর থেকে ছাড় করানো যাচ্ছেনা মাছ-মুরগি শিল্পে ব্যবহৃত কাঁচামাল, ওষুধপথ্য। এ অবস্থায় থমকে গেছে দেশীয় এগ্রো, পোল্ট্রি ও ফিসারিজ খাত, বেকার হয়ে পড়েছে বিশ লক্ষাধিক কর্মজীবী।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে মৎস্য চাষী, ব্যবসায়ী ও পোল্ট্রি খামারিদের কয়েকটি সংগঠনের যৌথ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয়।

বৃহত্তর ময়মনসিংহ মৎস্যজীবী সমিতি, ক্ষুদে মৎস্য খামার মালিক পরিষদ, গাজীপুর জেলা পোল্ট্রি ব্যবসায়ি সংঘ, জাতীয় এগ্রো-ফিসারিজ মালিক এসোসিয়েশন ও স্বনির্ভর খামার মালিক সমিতির আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, করোনা কবলিত এগ্রো, পোল্ট্রি ও ফিসারিজ খাতে মিথ্যা ভিত্তিহীন নানা গুজব এখন মরার উপর খরার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ব্রিডার্স ও হ্যাচারি, ফিড, পোল্ট্রি, প্রসেসড এবং প্রাণি ওষুধ খাতে ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতি ঘটে চলছে। দেশীয় এসব খাতকে ঘুরে দাঁড়াতে ব্যাংকের সুদ সম্পূর্ণ মওকুফ, বন্দরে আটকে পড়া কাঁচামাল জরুরি ভিত্তিতে ছাড় করাসহ সব ধরনের জরিমানা ও সারচার্জ পুরোপুরি মওকুফ, অন্তত ৩০ শতাংশ আর্থিক প্রণোদনা প্রদানের জোর দাবি জানানো হয়। মাছ ও মুরগি খামারিদের মাঝে কম দামে ওষুধ সরবরাহ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘আদিয়ান এগ্রো লিমিটেড’সহ কয়েকটি দেশীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নেশাজাত ওষুধ আমদানির মনগড়া অভিযোগ তুলে গোটা সেক্টরকেই সীমাহীন হয়রানির মুখে ফেলেছে। সংঘবদ্ধ ওই সিন্ডিকেট যে কোনো উপায়ে আদিয়ান এগ্রো লিমিটেডকে নিস্ক্রিয় বানিয়ে বাজারে মাছ-মুরগির বাজার আকাশচুম্বী করার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।

সংবাদ সম্মেলনে বৃহত্তর ময়মনসিংহ মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি নূরে আলম ভূইয়া, সিনিয়র সহসভাপতি মারুফ আহমেদ, ক্ষুদে মৎস্য খামার মালিক পরিষদের মহাসচিব খন্দকার আশরাফ-উন-নবী, গাজীপুর জেলা পোল্ট্রি ব্যবসায়ি সংঘের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জুলহাস আহমেদ কিরণ, জাতীয় এগ্রো-ফিসারিজ মালিক এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি কাদের কিবরীয়া, সাধারন সম্পাদক মিনহাজ আবেদীন, স্বনির্ভর খামার মালিক সমিতির প্রেসিডেন্ট রেজাউদ্দৌলা, দপ্তর সম্পাদক মাওলানা কাজী মেসবাহ আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ঢাকা প্রতিদিন.কম/এআর

Loading...

Check Also

তামাক উৎপাদন ও বিপণন চালু রাখার পক্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়

অর্থনীতি ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তামাক উৎপাদন ও বিপণন বন্ধ করার বিষয়ে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *