Home / জেলার খবর / ফের পাহাড়ে সন্ত্রাসী হামলা, ইউপিডিএফ সদস্যসহ নিহত ২

ফের পাহাড়ে সন্ত্রাসী হামলা, ইউপিডিএফ সদস্যসহ নিহত ২

নিজস্ব প্রতিবেদক

খাগড়াছড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর এক সদস্যসহ (প্রসিত খীসা গ্রুপ) দুই জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকালে বাড়িতে বসে দাবা খেলার সময় অতর্কিত হামলায় ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান। নিহতরা হলেন ইউপিডিএফ সদস্য বাবু চাকমা ওরফে রিঝাং (৩০) ও স্থানীয় বাসিন্দা সুদীব্য কান্তি চাকমা (২৫)।

ইন্দ্রমণি পাড়ার বাসিন্দা বাবু চাকমার বাবার নাম সুশীল ভূষণ চাকমা। আর সুদীব্য কান্তি চাকমা হলেন বীরেন্দ্র মোহন চাকমার ছেলে।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহ উদ্দিন জানান, আজ মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা মধ্য বানছড়া গ্রামে গিয়ে অতর্কিত ব্রাশ ফায়ার করলে ঘটনাস্থলেই ইউপিডিএফ সদস্য বাবু চাকমা ওরফে রিঝাং (৩০) ও সুদীব্য কান্তি চাকমা (২৫) নামে ওই গ্রামের এক বাসিন্দা নিহত হন। ঘটনার সময় তারা দুই জনে বাড়ির উঠানে বসে দাবা খেলছিলেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। লাশ উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সংগঠক ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি অংগ্য মারমা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় একটি বিশেষ মহলের মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের হামলায় একজন ইউপিডিএফ সদস্য ও অন্য একজন সাধারণ গ্রামবাসী নিহত হয়েছেন। এই ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। কাপুরুষোচিত, ন্যাক্কারজনক ও জঘন্যতম এই অপরাধের জন্য দায়ী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানাই।’

গত জানুয়ারিতেও খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফের এক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। গত ৩০ জানুয়ারি মাটিরাঙ্গায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) কর্মী সোনা ধন চাকমাকে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে বলে অভিযোগ ওঠে। এর মাত্র তিন সপ্তাহ আগে ১০ জানুয়ারি রাতে জেলার পানছড়ি উপজেলার মরাটিলা এলাকায় ইউপিডিএফ সদস্য পরেশ ত্রিপুরাকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

Loading...

Check Also

কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকীতে বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : সোমবার ( ২৫ মে) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *