Home / সুস্থ্ থাকুন / কোভিড-১৯ কে একটি পেশাগত ব্যাধি হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ‘ওশি’

কোভিড-১৯ কে একটি পেশাগত ব্যাধি হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ‘ওশি’

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ অক্যুপেশনাল হেলথ ,সেইফটি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ফাউন্ডেশন (ওশি) আজ এক জরুরী সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দেশের প্রচলিত শ্রম আইনের আওতায় সরকারের কাছে কোভিড-১৯ কে একটি পেশাগত ব্যাধি হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে। বিশ্বজুড়ে কর্মপরিবেশ এবং শ্রমজীবী মানুষদের উপর কোভিড-১৯ মহামারির মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। শ্রমিকদের মধ্যে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি অত্যন্ত প্রবল।

বিবৃতিতে ওশি জানায়, মারাত্মক সংক্রমণ ঝুঁকির মধ্যেও বর্তমানে জরুরী সেবা ও চাহিদা পূরণের কয়েক মিলিয়ন শ্রমিক ও কর্মচারীকে কাজ করতে হচ্ছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি ক্ষেত্র হলো, স্বাস্থ্যসেবার নিয়োজিত কর্মী, তৈরি পোশাক শিল্প শ্রমিক, চা শ্রমিক, ময়লা ও বর্জ্য নিষ্কাশনকর্মী ,গণমাধ্যমকর্মী, ব্যাংকিং এবং আর্থিক খাতে নিয়োজিত কর্মী। এছাড়াও জরুরী সেবা চালিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে স্থানীয়ভাবে খাদ্য সরবরাহ ও উৎপাদনে নিয়োজিত কর্মী, মুদি ও কাঁচামাল সরবরাহকারী, বেসরকারি নিরাপত্তা কর্মীদের এ মুহূর্তে অপর্যাপ্ত নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যেও তাদের কর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন। এদের অনেকেরই কর্মক্ষেত্রে এবং কর্মক্ষেত্রে আসা-যাওয়ার পথে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা রয়েছে। করোনা সংক্রমণ কালীন সময়ে তাই এ জনগোষ্ঠীকে বিশেষ সামাজিক নিরাপত্তা প্যাকেজের আওতায় আনা প্রয়োজন।

সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী এ আর চৌধুরী রিপন বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকারকে দ্রুততার সাথে কোভিড-১৯ কে একটি পেশাগত ব্যাধি হিসেবে ঘোষণা দেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া জরুরী ভিত্তিকে তাদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে নির্বাহী আদেশ জারী করা প্রয়োজন। জরুরী ভিত্তিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকা শ্রমিক ও কর্মীদের যথাযথ আবাসন, কোয়ারেন্টিনে থাকাকালীন অবস্থায় থাকা ও খাবার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা দরকার। এছাড়া তাদের কর্মক্ষেত্রে যাতায়াতের সুব্যবস্থা, উন্নত স্যানিটেশন ও নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে হবে।

উল্লেখ্য কর্মক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সেবা এবং নিরাপত্তা সুবিধা প্রতিটি শ্রমিক এবং কর্মীর বৈধ এবং আইনগত অধিকার। কোভিড-১৯ কে পেশাগত ব্যাধি হিসেবে ঘোষণা দিলে আক্রান্ত শ্রমিক ও কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও ক্ষতিপূরণ আদায় সহজতর হবে।

Loading...

Check Also

রোগীর স্বজনদের মিথ্যা তথ্য, মিটফোর্ড হাসপাতালের ৫ চিকিৎসকসহ ১২ জন করোনা আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক একজন রোগীর স্বজনদের মিথ্যা তথ্যের কারণে আবারও করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন চিকিৎসক, নার্সসহ অন্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *