Home / জাতীয় / না ফেরার দেশে ইডেনছাত্রী জুঁই

না ফেরার দেশে ইডেনছাত্রী জুঁই

 

এসএম দেলোয়ার হোসেন
অবশেষে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন রাজধানীর বিজয় সরণিতে উবারের মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গুরুতর আহত ইডেন মহিলা কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আকলিমা আকতার জুঁই। আজ সোমবার সকাল ৬টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, গত ৩০ নভেম্বর রাজধানীর বিজয় সরণিতে অ্যাপসভিত্তিক রাইডশেয়ারিং উবারের মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন ইডেন মহিলা কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্সের ছাত্রী আকলিমা আকতার জুঁই। এরপর তাকে ঢামেক হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় আজ সকাল ৬টার দিকে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে ঢাকা প্রতিদিনকে জানান নিহতের বান্ধবী রিতু আক্তার। নিহতের স্বজনরা জানায়, নিহত জুঁই ছিলেন নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বাসিন্দা আবুল কালাম দম্পতির মেয়ে। থাকতেন কাফরুলের পূর্ব কাজীপাড়ার একটি বাড়িতে। ঘটনার দিন ফার্মগেটে একটি কোচিং সেন্টারে লেখাপড়া করার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়ে কাজীপাড়া থেকে অ্যাপসভিত্তিক রাইডশেয়ারিং উবারের মোটরসাইকেলে চড়ে রওনা দেন জুঁই। পথিমধ্যে জুঁইকে বহনকারী মোটরসাইকেলটি বিজয় সরণিতে পৌঁছুলে পেছন থেকে রাস্তায় ছিটকে পড়েন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে আশপাশের লোকজনসহ মোটরসাইকেলের চালক সুমন দ্রæত তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করেন। প্রাথমিক চিকিৎসায় তার শারিরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। গতকাল সকালে সেখানেই তার মৃত্যু ঘটে।
ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আব্দুল খান বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা প্রতিদিনকে জানান, জুঁইকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে আনা উবারের চালক সুমন পুলিশকে জানিয়েছে- মিরপুরের কাজীপাড়া থেকে জুঁইকে নিয়ে ফার্মগেট যাওয়ার পথে বিজয় সরণি মোড়ে পৌঁছুলে ব্যাগ থেকে মোবাইল বের করতে গিয়ে পেছন থেকে নিচে পড়ে যান জুঁই। পরে লোকজনের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান চালক (সুমন)। সেখানে দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ সকালে না ফেরার দেশে চলে যান জুঁই। ময়নাতদন্তের জন্য নিহত ইডেন কলেজের ছাত্রী জুঁইয়ের লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিধি অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান এএসআই আব্দুল খান।

Loading...

Check Also

ইংরেজির পাশাপাশি বাংলায়ও রায় লেখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক ইংরেজির পাশাপাশি বাংলায়ও মামলার রায় লেখার বিষয় বিবেচনার জন্য বিচারকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *