Breaking News
Home / জেলার খবর / বঙ্গবন্ধুর আদর্শে লালন করে ন্যায় নীতি প্রতিষ্ঠা করে যাবো: মাহমুদুর রহমান জাবেদ

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে লালন করে ন্যায় নীতি প্রতিষ্ঠা করে যাবো: মাহমুদুর রহমান জাবেদ

সালাহ উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী থেকে
নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি, চেম্বার অফ কর্মাসের সহ-সভাপতি, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিসিআই-এর একজন সদস্য মাহমুদুর রহমান জাবেদ।
একটি রাজনৈতিক পক্ষ ও কুচক্রী মহল ফেসবুকে, ভুয়া অনলাইন নিউজ পোর্টালে এবং বিভিন্ন বেনামী ইউটিউব চ্যানেলে থেকে তার নামে অপপ্রচার এবং যড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে তিনি সুধারাম মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মাহমুদুর রহমান জাবেদ নামের নিজ ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি এ প্রতিবাদ জানান।
প্রতিবাদে তিনি তার ব্যক্তি জীবনের নীতি, আদর্শ, সাংগঠনিক ও রাজনৈতিক অবস্থান সম্পর্কে বিশদ ভাবে তুলে ধরেন। তিনি ছাত্র জীবন থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে একজন সৈনিক ছিলেন, ছোট বেলা থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির ছত্রছাঁয়ায় থেকে নীতি ও আদর্শ ধরে রেখে তিনি আজ নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য থেকে সহ- সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন।
জেলা আ’লীগের দুঃসময়ে সদর- সুবর্ণচর ৪ আসনের সাংসদ ও জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরীর নির্দেশ মতো সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সুখে, দুঃখে সব সময় পাশে থেকে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন।
তিনি সৎ, পরিশ্রমী ও প্রতিষ্ঠিত একজন ঠিকাদারী ব্যবসায়ী। তিনি ৯ বার কুমিল্লা কর অঞ্চলের নোয়াখালী জেলার মধ্যে সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে সম্মাননা স্মারক পেয়েছেন। আমার এইসব সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ড অনেকেই সহ্য করতে নাপেরে মাহমুদুর রহমান জাবেদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ভূয়া ফেসবুকে, অনলাইন নিউজ পোর্টালে এবং বিভিন্ন বেনামী ইউটিউব চ্যানেলে থেকে তার নামে অপপ্রচার এবং যড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে।
এই ব্যাপারে মাহমুদুর রহমান জাবেদ বলেন আমার কোনো বাহিনী বা গ্রæপ নেই। আমি ছাত্রলীগের সবাইকে আমার নিজের সন্তানের মত স্নেহ করি, যুবলীগের সকল নেতাকর্মীদের নিজের ভাই এর মত ভালোবাসি।
সকলের কাছে অনুরোধ করছি, কেউ যেন আমার নাম ব্যবহার করে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি অথবা কোনো সরকারি দপ্তরে গিয়ে বিরক্ত না করে অথবা কোন প্রকার সুবিধা আদায় না করে। অন্যথায় আমি আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো। আর আপনাদের কারো চোখে এরকম কোন কিছু ধরা পড়লে সাথে সাথে আমাকে জানাবেন অথবা থানায় ফোন করে জানান। পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
কেউ কোন সরকারী দপ্তরে গিয়ে তার নাম বিক্রি করে প্রভাব বিস্তার করলে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন এবং তিনি আজীবন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে থাকবেন বলে তিনি তার একান্ত মত প্রকাশ করেছেন।

Loading...

Check Also

পাহাড় কেটে সমতল

ইমরুল হাসান বাবু, টাঙ্গাইল থেকে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল ও সখীপুর উপজেলার পাহাড়ি এলাকায় অবাধে জমির শ্রেণি ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *