Home / জেলার খবর / ময়মনসিংহে রেলওয়ের পিডবিস্নউ নাজমুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

ময়মনসিংহে রেলওয়ের পিডবিস্নউ নাজমুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

আব্দুল হাফিজ, ময়মনসিংহ ব্যুরো
বাংলাদেশ রেলওয়ে ময়মনসিংহ অঞ্চলের শ্যামগঞ্জ সেকশনে কর্মরত উর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত পিডবিস্নউ) এটিএম নাজমুল হক মৃধার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, অনিয়ম, দুর্নীতি, সরকারী অর্থ আত্মসাৎ, কর্মচারীদের হয়রানীসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগ ও আদালতে পৃথক পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। হেড মেইট হয়ে ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করায় সর্বত্র ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। জারিয়া ও মোহনগঞ্জ পর্যন্ত রেলপথ সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজে চরম অনিয়ম ও দুর্নীতি করা হচ্ছে। আমদানীকৃত ১১শ সিস্নপারের মধ্যে সবগুলোই পুরাতন। সিøপার প্রথমে ওই এটিএম নাজমুল হক গ্রহণ করেন নাই। পরবর্তীতে উৎকোচ নিয়ে তা গ্রহণ করে জারিয়া ও মোহনগঞ্জ লাইনে বসানো হয়। বাস্তবে কাঠের ২১শ সিস্নপার বসানো হয়েছে। কাগজ-পত্রে দেখানো হয়েছে ২৫ শ থেকে ২৬শ। শামসুল হককে দেড় লাখ টাকা নিয়ে অস্থায়ীভাবে চাকুরী দেওয়া হয়েছে। অস্থায়ী গেইট ম্যান রুবেলকে দুর্ঘটনার কারণে চাকুরী থেকে বাদ দেওয়া হয়। পরবর্তীতে ত্রিশ হাজার টাকা নিয়ে দুর্ঘটনার মাত্র ৮/১০ দিন পর পুনরায় তাকে চাকুরীতে যোগদান করানো হয়। শ্যামগঞ্জ সেকশনে ১১টি গ্যাং রয়েছে এর স্থায়ী লোক সংখ্যা ৫৮ জন। গত বছর মে মাসে ১৬ মাসের জন্য মোট ১০ জন টি এল আর নিয়োগ করা হয়। মাত্র ১০ দিন কাজ করিয়ে প্রত্যেকের নামে মাসে ১২ হাজার ৫শ টাকা করে ১৬ মাসে ১০ জনের নামে ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন। রেল লাইনে নামমাত্র পাথর ফেলে দেড় কোটি টাকা কৌশলে দূর্নীতিবাজ চক্রটি মিলেমিশে হাতিয়ে নিয়েছে। গেইটম্যান তাজ্জত আলীর চাকুরী স্থায়ী করার জন্য ভারপ্রাপ্ত পিডবিস্নউ এটিএম নাজমুল হক মৃধা এক লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় তাকে চাকুরীচ্যুত করা হয়। তাজ্জত আলী অবশেষে এটিএম নাজমুল হক মৃধার বিরুদ্ধে নেত্রকোণা বিজ্ঞ অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৪০৬/৪২০ ধারায় ১৩০(১)১৮ নং মামলা দায়ের করেছেন। কথিত কাঠ চোর মোঃ শহিদ মিয়া এখন তার বিশ্বস্ত সহচর এবং তার কাছেই শ্যামগঞ্জ রেলওয়ের মালামালের গোডাউনের চাবি দেয়া হয়েছে। অস্থায়ী গেইটম্যান মোঃ শাহজাহান কবিরকে ক্ষমতার বলে এটিএম নাজমুল হক মৃধা চাকুরীচ্যূত করেছেন। শাহজাহানের চাকুরী স্থায়ীকরণের জন্য তার কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা ঘুষ চায়। শাহজাহান ২ লাখ টাকা নগদ দিয়ে বাকি ১ লাখ টাকা নিয়োগের পর দিবে বলে জানায়। কিছুদিন পর বাকি ১ লাখ টাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন, শাহজাহান টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে ২ লাখ টাকা ফেরত চায়, এতে এটিএম নাজমুল হক মৃধা চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয় এবং শাহজাহানকে চাকরিচ্যুত করেন। শাহজাহান এ ঘটনায় এটিএম নাজমুল হক মৃধার অন্যায় অত্যাচার ও অপকর্মের বিরুদ্ধে সু-বিচার চেয়ে নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১৪৪ দঃ বিঃ ০৬/২০১৮ মোকদ্দমা দায়ের করেছেন। গত ১২/০৯/২০১৮ ইং তারিখে দুর্নীতি দমন কমিশন ময়মনসিংহে ভারপ্রাপ্ত পিডবিস্নউ এটিএম নাজমুল হক মৃধার বিরুদ্ধে দূর্নীতি দমন কমিশনে শাহজাহান অভিযোগ দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে পিডবিস্নউ এটিএম নাজমুল হক মৃধা সব ঘটনা অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, কিছু দুর্নীতিবাজ লোক মিথ্যা অভিযোগ করে আমাকে হয়রানী করছে। আমি কোন অন্যায় কর্মকান্ডের সাথে জড়িত নই। যারা অপকর্ম করতে পারছে না; তারাই আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। কেওয়াটখালীতে কর্মরত সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী সুকুমার বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন অভিযোগের কথা শুনেছি এবং এটিএম নাজমুল হক মৃধাকে জিজ্ঞেস করেছি; তিনি বলেছেন তার পিছনে কিছু লোক লেগেছে তারাই অপপ্রচার চালাচ্ছে। এসব অভিযোগ সত্য কি মিথ্যা তা তদন্ত না করে বলা যাবে না। তদন্তেই সত্য-মিথ্যা বেরিয়ে আসবে।

Loading...

Check Also

টাকা ছাড়া মেলে না পাসপোর্ট

রাজিবুল হক সিদ্দিকী, কিশোরগঞ্জ থেকে দালাল ছাড়া পাসপোর্ট হয় না কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে। প্রত্যেক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *