Home / আন্তর্জাতিক / ৬২২ জনের মৃত্যুর পর ফিলিপাইনে ডেঙ্গুকে জাতীয় মহামারি ঘোষণা

৬২২ জনের মৃত্যুর পর ফিলিপাইনে ডেঙ্গুকে জাতীয় মহামারি ঘোষণা

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চলতি বছর মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ফিলিপাইনে অন্তত ৬২২ জন নিহত হওয়ার পর দেশটি ‘জাতীয় ডেঙ্গু মহামারি’ ঘোষণা করে। জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত অন্তত ১ লাখ ৪৬ হাজার ডেঙ্গু আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে যা একই মেয়াদে গতবছরের তুলনায় প্রায় ৯৮ শতাংশ বেশি বলে জানায় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

প্রাদুর্ভাবের এলাকাগুলো চিহ্নিত ও জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের তাগিদে এই সংকটকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। মশাবাহিত এই ভাইরাস সাধারণত জ্বরের সৃষ্টি করলেও তা মারাত্মক অবস্থায় পৌছাতে পারে, যা কেড়ে নিতে পারে প্রাণ। বিশ্ব স্বাংস্থ্য সংস্থার মতে, সাম্প্রতিক দশকে বিশ্বে ডেঙ্গুর নাটকীয় উত্থান ঘটেছে। জুলাইতে দেশটি প্রাথমিকভাবে এই মহামারির ঘোষণা দিয়েছিল।

স্বাস্থ্য সচিব ফ্রান্সিসকো ডিউক এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, ‘স্থানীয় প্রতিক্রিয়ার প্রয়োজন কোথায় এই প্রাদুর্ভাব ঘটেছে সেই স্থান চিহ্নিত করার জন্য এবং স্থানীয় সরকার ইউনিটগুলোকে তাদের দ্রুত প্রতিক্রিয়া তহবিল ব্যবহার করে মহামারি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সক্ষম করার জন্য এই একটি জাতীয় মহামারি ঘোষণা করা জরুরি ছিল।’

দেশটির পশ্চিমা ভিসায়াতে সবচেয়ে বেশি প্রাদুর্ভাব রেকর্ড করা হয়েছে, যেখানে ২৩,০০০-এরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়। এছাড়াও ক্যালবার্জন, জামবোঙ্গা উপদ্বীপ এবং উত্তর মিন্দানাওতে উল্লেখযোগ্য প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। সাতটি অঞ্চলে পর পর তিন সপ্তাহ ধরে মহামারিটির মাত্রা ছাড়িয়েই যাচ্ছে।

ডেঙ্গু ভ্যাকসিন নিয়ে আতঙ্ক ফিলিপাইনে টিকাদান হারে বড় হ্রাস ঘটাবে বলে কর্মকর্তারা গত বছর সতর্ক করে দিয়েছিলেন। ২০১৬-১৭ মেয়াদে ফিলিপাইনে ৮ লাখেরও বেশি টিকা দেয়ার পরে ১৪টি শিশু মারা গিয়েছিল। ডেঙ্গু প্রতিরোধী বিশ্বের প্রথম টিকা ডেঙ্গভাক্সিয়া প্রচলনের পর উদ্বেগ ছড়িয়ে গিয়েছিল। এই ভেক্সিনের আবিষ্কার ফরাসি কোম্পানি সানোফি এবং স্থানীয় বিশেষজ্ঞরা ঐ ১৪ শিশুর মৃত্যুর সঙ্গে টিকাটির কোনো সম্পর্কের প্রমাণ খুঁজে পায়নি।

বিশ্বজুড়ে প্রতি বছর প্রায় ৪০ কোটিরও বেশি লোক ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। এদের বেশিরভাগ গ্রীষ্মমন্ডলীয় বা উপ-ক্রান্তীয় অঞ্চলেই ঘটে থাকে এবং শিশুদের মধ্যেই গুরুতর সংক্রমণ সনাক্ত করা হয়। লক্ষণগুলোর মধ্যে জ্বর, চোখের পেছনে ব্যথা এবং একটি লাল ফুসকুড়ি অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। এগুলো সাধারণত সংক্রমণ হওয়ার চার থেকে দশ দিনের মধ্যে বিকাশ লাভ করে এবং প্রায় এক সপ্তাহের মধ্যে চলে যায়।

Loading...

Check Also

ইরানের পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র আছে, দাবি যুক্তরাজ্য-ফ্রান্স-জার্মানির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলসহ পশ্চিমাদের মোকাবিলায় সমরাস্ত্রের প্রতি বেশ জোর দিয়েছে ইরান। কোনো নিষেধাজ্ঞাই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *