Breaking News
Home / জাতীয় / বঙ্গবন্ধুই সর্বপ্রথম নারীদের ক্ষমতায়ন করেন : ফজিলাতুন নেসা

বঙ্গবন্ধুই সর্বপ্রথম নারীদের ক্ষমতায়ন করেন : ফজিলাতুন নেসা

নিজস্ব প্রতিবেদক
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই সর্বপ্রথম নারীদের ক্ষমতায়নে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অবহেলিত নারীদের জীবনমান উন্নয়নে নানা প্রকল্প গ্রহণে নির্দেশনা এবং তা বাস্তবায়নে বাজেটও প্রণয়ন করছেন। মঙ্গলবার রাজধানীতে জাতীয় মহিলা সংস্থা আয়োজিত ‘মহিলাদের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্প (তয় পর্যায়) এর আওতায় প্রশিক্ষনার্থীদের সাথে মতবিনিময়, ভাতা বিতরণ এবং সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশুবিষয় প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এসব কথা বলেন।
জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম অ্যাডভোকেট এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার, মহিলাদের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্প (তয় পর্যায়) এর প্রকল্প পরিচালক আনোয়ারা বেগমসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি মহিলা ও শিশুবিষয় প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেসা বলেন, আজকে আমাদের দেশের রাজনীতি, সংসদ, প্রশাসনসহ সর্বত্র পুরুষের পাশাপাশি নারীরা নিরাপদে কাজ করছেন। কিন্তু এক সময় তা ছিলনা। প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানই মহিলাদের রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার ব্যাপারে উৎসাহ এবং সহযোগিতা প্রদান করেন। এখানেই শেষ নয় জাতীয় সংসদে মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত আসন বঙ্গবন্ধুই চালু কনে গেছেন। মহিলা ও শিশুবিষয় প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর অনুকরণ এবং অনুসরণেই তার কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে নারী নীতি প্রণয়ন, শিশু নীতি প্রনয়ণ, বাল্য বিবাহবন্ধসহ যুগান্তকারী অনেক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। শুধু তাই নয় অবহেলিত নারীদের জীবনমান উন্নয়নে জাতীয় বাজেটে তিনি বিশেষ বরাদ্দও রেখেছেন। যে কারণেই আজকে নারীরা সরকারের গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্প দ্বারা উপকৃত হয়ে এই অনুষ্ঠানে উপস্থি হয়ে তাদের সাফল্যের কথাগুলো বলতে পারছেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার বলেন, মহিলাদের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ৮২ হাজার ৫শ, নারী উপকৃত এবং আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে। যা এই মন্ত্রণালয় এবং সরকারের একটি অভ‚তপূর্ব সাফল্য। আর এটি সম্ভব হয়েছে একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উদ্যোগ এবং সহযোগিতার কারণেই। আগামীতে এ জাতীয় প্রকল্পগুলো যখন সারা দেশব্যাপী কাজ করবে তখন কোনো নারী আর অবহেলিত এবং দরিদ্র থাকবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

Loading...

Check Also

সারাদেশে তাপমাত্রা থাকবে অপরিবর্তিত, হতে পারে বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সকাল ৯টা পরবর্তী ২৪ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *