Home / খেলাধুলা / রান বন্যার বিশ্বকাপ হবে: কোহলি

রান বন্যার বিশ্বকাপ হবে: কোহলি

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম ২২ মে : ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসে আসন্ন ওয়ানডে বিশ্বকাপটি রান বন্যার আসর হবে বলে মনে করছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বর্তমান কন্ডিশনের কারণে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা পাবে বলেই হাই-স্কোরিং ম্যাচ হবে বলে জানান তিনি। এছাড়া এবারের আসরকে সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং বলে মন্তব্য করেছেন সময়ের বিশ্বসেরা এই ব্যাটসম্যান।

ইংল্যান্ডের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে মুম্বাইয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে কথা বলেন কোহলি। তার সাথে ছিলেন কোচ রবি শাস্ত্রী। এই দলের উপর আস্থা রয়েছে কোচের। তাই বিশ্বকাপে সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী তিনিও। আগামীকাল ইংল্যান্ডের উদ্দেশে ভারত ছাড়বে কোহলি-ধোনিরা।

১৯৭৫ সালে বিশ্বকাপ আসর শুরুর পর প্রথম দুই আসরে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেয় ভারত। তবে নাটকীয়ভাবে ১৯৮৩ সালের চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। গ্রুপ পর্বে খর্বশক্তির দল জিম্বাবুয়ের কাছে হারতে-হারতে বেেঁচ যায় ভারত। ১৭ রানে ৫ ও ৭৮ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ হারের শংকায় পড়ে ভারত। কিন্তু ছয় নম্বরে নেমে অধিনায়ক কপিল দেব ১৩৮ বলে অপরাজিত ১৭৫ রানের মহাকাব্যিক এক ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসের কল্যাণেই ৬০ ওভারের ম্যাচে ৮ উইকেটে ২৬৬ রান করে ভারত। পরে বোলারদের দৃঢ়তায় ৩১ রানে জয় পায় কপিলের দল।

এরপর গ্রুপ পর্ব ও সেমিফাইনালের বাঁধা পেরিয়ে ফাইনালে শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হয় ভারত। প্রথমে ব্যাট করে ১৮৩ রানে অলআউট হয়ে শিরোপা জয়ের স্বপ্নও দেখেনি টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু ভাগ্যে লেখা থাকলে, ঠেকায় কে। বোলারদের নৈপুণ্যে প্রথম দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪৩ রানে হারিয়ে তৃতীয় আসরেই বিশ্বকাপের স্বাদ নেয় ভারত।

এরপর ছয়টি আসর কেটে গেলেও শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি ভারত। অবশেষে ২০১১ সালে দ্বিতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। শচীন টেন্ডুলকার, বিরেন্দার শেবাগ, যুবরাজ সিং-হরভজনদের নিয়ে গড়া দলকে শিরোপার স্বাদ দেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এরপর ২০১৫ সালে সেমিফাইনালে উঠে ক্ষান্ত হতে হয় ভারতকে।

তবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে শিরোপা পুনরুদ্ধারে উদগ্রীব ভারত। এজন্য নিজেদের সেরা খেলাটাই আসল লক্ষ্য টিম ইন্ডিয়ার বলে জানালেন কোহলি, ‘গেল দুই-তিন বছর আমরা যেরকম ক্রিকেট খেলেছি, ঠিক সেভাবেই আসন্ন বিশ্বকাপে খেলতে চাই। আমাদের আসল লক্ষ্য ভালো ক্রিকেট খেলা এবং মাঠের লড়াইয়ে নিজেদের উজার করে দেয়া।’

আসন্ন বিশ্বকাপটি অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং বলে মনে করেন কোহলি। তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, এটিই সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপ। কারণ, এবারের বিশ্বকাপের ফরম্যাট ভিন্ন। আমার খেলা অন্য বিশ্বকাপের থেকে এটি সম্পূর্ণ আলাদা। এই ফরম্যাটে যেকোন দল অঘটন ঘটাতে পারে। প্রত্যকটি দলের সাথে ব্যবধান খুব বেশি নয়। তাই দ্রুতই এই ফরম্যাটের সাথে মানিয়ে নিতে হবে।’

বিশ্বকাপের দল নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী কোহলি। আইপিএলের কারনেই দলের খেলোয়াড়দের প্রতি আস্থা বেড়েছে তার। এমনটাই বললেন কোহলি, ‘আমরা ভারসাম্যপূর্ণ ও আত্মবিশ্বাসী একটি দল নিয়ে বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছি। দলের তিন বিভাগেই ভালো খেলোয়াড় রয়েছে। যারা নিজেদের সামথ্যের্র প্রমান দিয়েছে। আইপিএলে প্রত্যক খেলোয়াড়ই নিজেদের সেরা ফর্মে ছিলো। আইপিএলের কারনে দলের সবাই নিজেদের ফর্ম নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। সবাই ক্রিকেটকে উপভোগ করতে চায়। যেকোন পরিস্থিতি সামাল দেয়ার ক্ষমতা আছে দলের।’

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন কোহলি। ইংল্যান্ডে এ সময়কার কন্ডিশন ক্রিকেটের জন্য উপযোগি বলে মনে করেন তিনি, ‘আমরা বিশ্বকাপে বড় স্কোর আশা করি। আইসিসির ইভেন্টে পিচ খুবই ভালো হয়। ব্যাটসম্যানদের পক্ষেই থাকে। আমি বলবো না, লো-স্কোরিং ম্যাচ হবে না। কিন্তু ২৬০-২৭০ রানের যেকোন দলের জন্য ভালো সংগ্রহ হবে। বোলারদের লড়াই করতে সুবিধা হবে। তবে কন্ডিশনের কারনে বেশিরভাগ ম্যাচই হাই-স্কোরিং হবে।’

কোহলির সাথে তাল মিলিয়ে দলের কোচ শাস্ত্রী বলেন, ‘পিচ হবে ফ্লাট। ইংল্যান্ডের এখনকার কন্ডিশনে কি হতে পারে তা বুঝতে কিছুটা সময় লাগবে। তবে আমরা নিজেদের কন্ডিশনের সাথেই মানিয়ে নিবো। দলের খেলোয়াড়রা ভালো ফর্মে রয়েছে এবং মাত্রই আইপিএল শেষ করেছে। দেড় মাস ধরে আইপিএল খেলেছে তারা। সকলেই খেলার মধ্যে ছিলো। নিজেদের সেরাটা বিশ্বকাপের মঞ্চে সকলেই দিতে পারবে বলে আমি আশাবাদী।’

বিশ্বকাপের মূল লড়াইয়ের আগে দু’টি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে ভারত। ২৫ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ও ২৮ মে বাংলাদেশের বিপক্ষে দু’টি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ রয়েছে টিম ইন্ডিয়ার। তবে সাউদাম্পটনে ৫ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে কোহলির দল। বাসস।

ঢাকা প্রতিদিন.কম/এআর

Loading...

Check Also

শুরুর সাথে মিললো না শেষ, ইংল্যান্ডের লক্ষ্য ২৮৬

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নারের জুটিতে দারুণ শুরুর পর মিডল ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *