Home / জেলার খবর / নববর্ষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি

নববর্ষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা প্রতিদিন.কম ১৬ এপ্রিল : প্রায় ছয় বছরের আগের ঘটনা। সেদিন প্রতিদিনের মতো সকালবেলা বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন পাবনা পল্লী সমিতি-১ এ দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে কাজ করা শ্রমিক শাহাদৎ হোসেন।

যা আয় হতো সেই টাকা দিয়ে স্ত্রী ও দুই ছেলেমেয়ের মুখে অন্ন তুলে দিতেন। বিদ্যুতের পোলে উঠে কাজ করার সময় নিচে পড়ে গুরুতর আঘাত পেয়ে বিছানাশয্যা হয়ে পড়েন তিনি। কেটে ফেলতে হয় বাম হাতের তিনটি আঙুল।

সেই সময় পল্লী বিদ্যুৎ থেকে পাওয়া আর্থিক সহযোগিতা ও সহায়সম্বল বলতে যা ছিল সবটুকু বিক্রি করে চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েন তিনি। ধারদেনা করে চলছিল সংসার। তবে দীর্ঘদিন পর সুস্থ হলেও অভাব অনটনের মধ্যে দিন কাটছিল পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের আবদুস সবুরের ছেলে শাহাদৎ হোসেনের।

অনেকে শাহদৎকে ভুলে গেলেও ভোলেনি পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মকর্তারা। তারা এগিয়ে এলেন তার পরিবারের পাশে।

সে যেন উপার্জন করে সংসার চালাতে পারে সে জন্য রোববার বাংলা নববর্ষের দিন পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর অর্থায়নে শাহাদতের হাতে তুলে দেয়া হলো একটি ব্যাটারিচালিত নতুন অটোভ্যান। সহমর্মিতার অন্যন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মকর্তারা।

ভ্যান প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন সমিতির জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাশফিকুল হাসান, এজিএম (প্রশাসন) শামীম কাওসার, এজিএম (ইএন্ডসি) মো. শফিউদ্দিন, এজিএম (ওএন্ডএম) মো. নুরুজ্জামান প্রমুখ।

নতুন ভ্যান পেয়ে আবেগাপ্লুত শাহাদৎ হোসেন জানান, ‘আমি হতাশ হয়ে পড়েছিলাম। সংসার চালাতে পারছিলাম না। ভাবতেই পারিনি এত বছর পর স্যাররা আমাকে মনে রাখবেন। এখন সৎভাবে উপার্জন করে সংসার চালাতে পারব। এটা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ উপহার।’

এজিএম (প্রশাসন) শামীম কাওসার জানান, ‘শাহাদৎ দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করত। তার অনেক ঘাম ও পরিশ্রম মিশে আছে সমিতিতে। অন্তত সে যেন পরিবার নিয়ে দুবেলা খেতে পারে এ জন্য উদ্যোগটি নেয়া হয়েছে। আগামীতে তাকে সমিতির কোনো জোনাল অফিসে কাজ দেয়া হবে।’

ঢাকা প্রতিদিন.কম/এআর

Loading...

Check Also

কেমন কাটছে শাবানার প্রবাস জীবন?

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম ২৪ এপ্রিল : বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র হচ্ছে একসময়ের জনপ্রিয় ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *