Home / আইন আদালত / শিশু সাফায়েত হত্যার অভিযোগে বাবা কাজল তিন দিনের রিমান্ডে

শিশু সাফায়েত হত্যার অভিযোগে বাবা কাজল তিন দিনের রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক : রাজধানীর বাংলামোটরে সাফায়েত নামের ৩ বছর বয়সী শিশুকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার শিশুটির বাবা নুরুজ্জামান কাজলের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম দিমান মন্ডল তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে বুধবার রাতে ৩ বছরের শিশু সাফায়েতকে হত্যার অভিযোগে তার বাবা নুরুজ্জামান কাজলের বিরুদ্ধে রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেন শিশুটির মা মালিহা আক্তার।

পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে ওই বাসার দোতলায় থাকেন নুরুজ্জামান কাজল। তার নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে মাস খানেক আগে স্ত্রী মালিহা আক্তার প্রিয়া দু’সন্তান রেখে বাড়ি ছেড়ে চলে যান। সেই থেকে শিশু দু’টি তাদের বাবার সঙ্গে ছিল। নুরুজ্জামান কাজল মাদকাসক্ত ছিলেন বলেও জানান তার পরিবারসহ প্রতিবেশীরা।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার সকালে রাজধানীর বাংলামোটর এলাকার একটি বাসায় সাফায়েত নামে ৩ বছরের এক শিশুকে তার বাবা হত্যা করেছেন-এমন সংবাদ পেয়ে ছুটে গিয়েও বাসার ভেতরে ঢুকতে পারছিলেন না আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। কারণ ভেতরে মরদেহের পাশে ধারালো দা হাতে আরেক সন্তানকে বুকে নিয়ে বসেছিলেন শিশুটির বাবা নুরুজ্জামান কাজল। তিনিই কাউকে বাসায় ঢুকতে দেননি। কাজলের ভাই নুরুল হুদা উজ্জ্বলেরও দাবি, শিশুটিকে তার বাবাই খুন করেছে। অবশেষে ঘটনার ৬ ঘণ্টা পর সন্তানদের জিম্মি নাটকের অবসান হয়। বাবার হাতে নিহত ও জিম্মি থাকা দুই সন্তানকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় শাহবাগ থানা পুলিশ। আটক করা হয় ঘাতক বাবা নুরুজ্জামান কাজলকেও।
উদ্ধার অভিযানে র‌্যাব-২ এর একটি টিমও অংশ নেয়। ওই টিমের কর্মকর্তা এসআই শহীদুল ইসলাম বলেন, আমি ভেতরে ঢুকে দেখেছি, নুরুজ্জামান কাজল তার ছোট শিশুকে কাফনের কাপড় পরিয়ে টেবিলের ওপর রেখেছেন। এছাড়া বড় সন্তানকে বুকে জড়িয়ে হাতে বড় রামদা নিয়ে বসে আছেন।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/০৬ ডিসেম্বর/এসকে

Loading...

Check Also

সব জেলায় দেউলিয়া আদালত প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক ঋণ খেলাপিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এবার দেশের সব জেলায় স্বতন্ত্র দেউলিয়া আদালত প্রতিষ্ঠার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *