Home / জেলার খবর / তারাগঞ্জের সড়কগুলো খানাখন্দক
SAMSUNG CAMERA PICTURES

তারাগঞ্জের সড়কগুলো খানাখন্দক

তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি : রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলা শহরের পাকা সড়কগুলো দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-বড় অনেক গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি হলে ওই সব গর্তে পানি জমে থাকলে অবস্থা আরো খারাপ হয়ে যায়। সড়কের এ দুরবস্থার কারণে এই উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, তারাগঞ্জ বাজার যাওয়ার বাইপাস তারাগঞ্জ বাজার উপজেলা পরিষদ দুই কিলোমিটার সড়কটি সংস্কার না করায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কের বেশির ভাগ স্থানে কার্পেটিং উঠে গেছে। আবার কোথাও কোথাও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ওই সড়ক দিয়ে নিয়মিত যাতায়াত করেন ঘনিরামপুর গ্রামের কৃষক আনারুল ইসলাম। তিনি বলেন, ভাঙাচুরা রাস্তাকোনা দিয়া হাঁটা যায় না। পায়োত ঘুতা (আঘাত) নাগে। তারাগঞ্জ কিশোরগঞ্জ সড়কটির অবস্থাও খারাপ।
১১ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সড়ক দিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যায়। দিন-রাত সড়কটি দিয়ে এক হাজার যানবাহন চলাচল করে।

বর্তমান সড়কটি তারাগঞ্জ চৌপথি থেকে কেল্লাবাড়ী পর্যন্ত এক কিলোমিটার অংশ গর্তে ভরে গিয়েছে। এখন ওই অংশ দিয়ে যান চলাচল তো দূরের কথা, সাধারণ মানুষের হেঁটে চলাচল করতেও কষ্ট হয়।

রহিমাপুর গ্রামের মজিবর রহমান বলেন, তারাগঞ্জ বাজারের গোরত এক কিলোমিটার রাস্তা কোনার এক হাত বাদ বাদ পিচ উঠি যেয়া বড় বড় গর্ত হইছে। বৃষ্টি হইলে গর্তগুলোত পানি জমে। তখন এদি হামরা হাইটপার পাই না। এ ছাড়া তারাগঞ্জ নতুন চৌপথি থেকে তারাগঞ্জ বাজার পর্যন্ত এক কিলোমিটার, পুরাতন চৌপথি থেকে কাজীপাড়া পর্যন্ত দুই কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং উঠে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

কুর্শা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আফজালুল হক সরকার বলেন, উপজেলা সদরের সড়কগুলো সংস্কারের জন্য উপজেলা প্রকৌশলীকে অনুরোধ করেছি।

তারাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান লিটন বলেন, সড়কগুলো সংস্কারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে জেলা নির্বাহী প্রকৌশলীকে দু-এক দিনের মধ্যে বলব।

উপজেলা প্রকৌশলী আহমেদ হায়দার জামান বলেন, বরাদ্দ পেলে সড়কগুলো পর্যায়ক্রমে সংস্কার করা হবে।

ব্রিজ না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করছে শিক্ষার্থীসহ অনেকে- ঢাকা প্রতিদিন

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/১১ অক্টোবর/এসকে

Loading...

Check Also

স্বপ্ন বুনছে চাষিরা

নাটোর সংবাদদাতা : ফসলি মাঠে স্বপ্ন বুনছে চাষিরা। নাটোর জেলায় চলতি রবি মৌসুমে ২৬ হাজার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *