Home / জেলার খবর / দিনাজপুরে ভ্যানচালকের সন্দেহভাজন খুনিকে পুড়িয়ে হত্যা

দিনাজপুরে ভ্যানচালকের সন্দেহভাজন খুনিকে পুড়িয়ে হত্যা

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বীরগঞ্জে এক ভ্যানচালকের সন্দেহভাজন খুনিকে ধরে পুড়িয়ে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে বীরগঞ্জ উপজেলায় এ দুই হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর দফায় দফায় ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করেছেন স্থানীয় জনতা।

বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার পরপরই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের পর তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
নিহতরা হলেন- বীরগঞ্জ উপজেলার জগদল ডাঙ্গাপাড়া এলাকার মৃত কাশেম আলীর ছেলে ভ্যানচালক সুরুজ মিয়া (৪৫) ও একই এলাকার তারামিয়ার ছেলে রবিউল ইসলাম (২৬)। আহতরা হলেন- একই এলাকার একটি মুরগী ফার্মের নৈশ প্রহরী শহীদ (৩০) ও ৩ বছরের ছেলে একরামুল। আহত শহীদকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও একরামুলকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে ফেরার পথে ভ্যানচালক সুরুজ মিয়া, নৈশ প্রহরী শহীদ ও ৩ বছরের ছেলে একরামুলকে কুপিয়ে পালিয়ে যায় একই এলাকার ‘সন্ত্রাসী’ হিসেবে পরিচিত রবিউল ইসলাম। এতে ঘটনাস্থলেই সুরুজ মিয়া মারা যায়। এই ঘটনার পর সকাল ৬টা থেকে ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে এলাকাবাসী। পরে সকাল পৌনে ৮টার দিকে এলাকাবাসী ঘাতক রবিউল ইসলামকে কাহারোল উপজেলার তের মাইল গড়েয়া থেকে ধরে ঘটনাস্থলে নিয়ে মারধর করে এবং এক পর্যায়ে তাকে পুড়িয়ে হত্যা করে। এতে করে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সকাল থেকেই দফায় দফায় মহাসড়ক অবরোধ করে দু’পক্ষের লোকজন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে ও সকাল ১০টা থেকে যান চলাচল শুরু হয়।

এলাকাবাসী জানায়, রবিউল ইসলাম এলাকার ‘সন্ত্রাসী’ হিসেবে পরিচিত। দুই মাস আগে সুরুজ মিয়ার ভাতিজা বশিরকে কুপিয়ে হত্যা করে রবিউল। গত সোমবারও একজনকে এলোপাথাড়ি কোপায় রবিউল।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/০৯ আগস্ট/এসকে

Loading...

Check Also

নোয়াখালীতে শোক দিবসে জাতীয় পতাকার অবমাননা

সালাহ উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী থেকে : নোয়াখালীতে জাতীয় শোক দিবসে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সকল প্রতিষ্ঠানে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *