Home / জেলার খবর / ফুলবাড়ীয়ায় বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন

ফুলবাড়ীয়ায় বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন

নজরুল ইসলাম খান, ফুলবাড়ীয়া থেকে : ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন সহ ১১৭টি ওয়ার্ডে ২০১৭-১৮ অর্থ বৎসরের টিআর-কাবিখাসহ বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের গুণগত মান বজায় রাখার লক্ষ্যে সংশিষ্ট কর্মকর্তাদের কড়া নজরধারী ছিল চোখে পড়ার মত। উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়নের ক্ষেত্রে কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) ও টেস্ট রিলিফ (টিআর) প্রকল্প কোথাও কোথাও অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্প কাগজ কলমে থাকলেও বাস্তবে এগুলোর অস্থিত্ব মেলা খুবই কঠিন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭-২০১৮ অর্থ বৎসরের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরাধীন কাবিখা, টি.আর. কর্মসূচীর আওতায় বিশেষ কাবিখা (১ম ধাপ) ৫৭ লক্ষ ৬২ হাজার ৯৯৮ টাকার বিপরীতে ১৮টি প্রকল্প, সোলার প্যানেল স্থাপনে ৫৬ লক্ষ ৪৭ হাজার ৭৩৮ টাকার বিপরীতে ৪৭টি প্রকল্প, বিশেষ টি.আর. (১ম ধাপ) ৪৮ লক্ষ ৬৯ হাজার ২০৩ টাকার বিরীতে ৯৯টি প্রকল্প, সোলার ৪৭ লক্ষ ৭১ হাজার ৮১৯ টাকার বিপরীতে ১৯২টি প্রকল্প। সাধারণ কাবিখা ১ম পর্যায় উন্নয়ন খাতে ৪৩ লক্ষ ২৮ হাজার ০৪৮ টাকার বিপরীতে ১৬টি প্রকল্প, সোলার ৪২ লক্ষ ৪১ হাজার ৮৯৯ টাকার বিপরীতে ১৩৮টি প্রকল্প, সাধারণ টি.আর. (১ম ধাপ) ৩১ লক্ষ ৫৫ হাজার ৭৫৪ টাকার বিপরীতে ৪৫টি প্রকল্প, সোলার ৩০ লক্ষ ৯২ হাজার ৬৩৯ টাকার বিপরীতে ১১৬টি প্রকল্প, বিশেষ কাবিখা (২য় পর্যায়) ১৪৭ মেট্রিক টন চালের বিপরীতে ১৫টি প্রকল্প, সোলার ৫৬ লক্ষ ৪৭ হাজার ৭৩৮ টাকার বিরীতে ১৬৬টি প্রকল্প, বিশেষ টি.আর. (২য় ধাপ) ৪৮ লক্ষ ৬৯ হাজার ২০৩ টাকার বিপরীতে ৭৪টি প্রকল্প, সোলার ৪৭ লক্ষ ৭১ হাজার ৮১৯ টাকার বিপরীতে ১৭৩টি প্রকল্প, সাধারণ কাবিখা (২য় ধাপ) উন্নয়ন খাতে ১১০ মেঃ টন চালের বিপরীতে ১৮টি প্রকল্প, সোলার ৪২ লক্ষ ৪১ হাজার ২২৩ টাকার বিপরীতে ১৪৮টি প্রকল্প, সাধারণ টি.আর. (২য় পর্যায়) উন্নয়ন খাতে ৩১ লক্ষ ৫৫ হাজার ১৩০ টাকার বিপরীতে ৪১টি প্রকল্প, সোলার ৩০ লক্ষ ৯১ হাজার ০৪৮ টাকার বিপরীতে ১১৭টি প্রকল্প, অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসূচীতে ১ম ও ২য় ধাপে ১৭৮টি প্রকল্পের কাজ হয়।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার ইউনিয়নগুলোতে রাস্তা মেরামত, মন্দির সংস্কার, মাঠ ভরাট, পুনঃস্কার, কবরস্থান, ঈদগাহ্ মাঠ, মসজিদের মাঠ ভরাট, মাঠি ফেলা, মেঝে পাকাকরণ, সোলার প্যানেল, ব্রিজ-কালভার্ট, এইচবিবিসহ বাঁধের সংস্কার, নালা-নর্দমা খনন ও পুনঃখনন, বৃক্ষরোপণ, শিক্ষা/ধর্মীয় ও অন্যান্য সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলার পুটিজানা ইউনিয়নের টি.আর, কাবিখা, ৪০ দিনের কর্মসূচীর বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করেন। এসময় দেওগাঁও, কুশমাইল তালতলী বাজার, পানজানা সরকারি বাড়ী, বিড়ালশাখ, কমলাপুর, পীরগঞ্জ বাজার, বেড়িবাড়ী সহ নতুন রাস্তা এবং বিভিন্ন রাস্তার পুনঃ সংস্কার কাজ পরিদর্শন করেন। এসময় সঙ্গে ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আঃ বাছেদ, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হাসান মাহবুব খান, ইউ,পি চেয়ারম্যান মো. ময়েজ উদ্দিন তরফদার।

খোঁজখবর নিয়ে দেখা যায়, পুটিজানা, ফুলবাড়ীয়া, কুশমাইল, বাক্তা, নাওগাঁও, কালাদহ ইউনিয়নের কাবিখা-টিআর, ৪০ দিনের কর্মসূচীর প্রকল্পের কাজ গুণগত মান ভাল। তবে অনেক ইউনিয়নে বৃষ্টি কারণে কাজের মান ঠিক থাকছে না। বালিয়ান ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফউজ্জামান বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতরে অতি দরিদ্রদের মাঝে বরাদ্দকৃত ভিজিএফ চাউল যথাসময়ে বিতরণ না করায় অনেক অসুবিধার সম্মুখিন হতে হয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আব্দুল বাছেদ এর তত্ত্বাবধানে সুষ্ঠুভাবে যথাসময়ে প্রকল্পের কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। এটা সম্ভব হয়েছে কড়া নজরদারী থাকার কারণে। তিনি জানান ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যহত থাকবে। ইতিমধ্যে বাক্তা, রাধাকানাই ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রকল্পের কাজ সরেজমিনে পরিদর্শন করেছি। এছাড়াও তিনি আরও বলেন ৪০ দিনের কর্মসূচীর প্রকল্পের কাজ ২৮ জুন এবং কাবিখা, টিআর প্রকল্পের কাজ ৩০ জুন শেষ হয়েছে।

অপরদিকে সোলার প্যানেলের কোম্পানীগুলোর সাথে সময়মত চুক্তি না হওয়ায় সোলার প্যানেল স্থাপনের কার্যক্রম ব্যহত হয়েছে। যার কারণে এখনো সোলার প্যানেল স্থাপন চলমান রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার বলেন, প্রকল্পগুলো কাজের গুণগত মান ভাল। ইতিমধ্যে বহু প্রকল্পে কাজ আমি নিজে সরেজমিনে পরিদর্শন করেছি। এটা সম্ভব হয়েছে সকল জনপ্রতিনিধি ঐকব্যবদ্ধভাবে কাজ করার কারণে। দু’একটি ইউনিয়নে টিআর-কাবিখার ক্ষেত্রে অব্যবস্থাপনাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগের আঙ্গুল উঠেছে। এ বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/১০ জুলাই/এসকে

Loading...

Check Also

টাঙ্গাইলে ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলে পৃথক অভিযানে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২ এর সদস্যরা। গতকাল ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *