Home / আন্তর্জাতিক / ৬ দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল

৬ দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল

ডেস্ক রিপোর্ট : যুক্তরাষ্ট্রে ৬ মুসলিম দেশের নাগরিকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহালের প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। আদালতের রায়কে বর্ণবাদী আখ্যা দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার ওয়াশিংটন ডিসিতে সুপ্রিম কোর্টের সামনে বিক্ষোভ থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়া হয়। এর আগে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে বিস্ময়কর আখ্যা দিয়ে, একে মার্কিনীদের বিজয় বলে উল্লেখ করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে রায়কে জাতীয় নিরাপত্তার আড়ালে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশ বন্ধের চক্রান্ত বলে অভিহিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের দুই বিচারক।

ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া ও ইয়েমেনের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রের প্রবেশে মার্কিন প্রশাসনের জারি করা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখায় সুপ্রিম কোর্টের রায়ের নিন্দা জানিয়ে মঙ্গলবার আদালতের সামনেই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। রায়ের বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন বিক্ষোভকারীরা।

রায়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মুসলিম কমিউনিটির নেতারা। রায়, সমঅধিকার ও সমান নিরাপত্তায় বিশ্বাসী মার্কিনীদের হতাশ করেছে বলেও দাবি তাদের। এর আগে হাওয়াই অঙ্গরাজ্যের আদালতে করা আপিলের শুনানি শেষে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার পক্ষে রায় দেন ৯ সদস্যের বিচারিক বেঞ্চ। প্রধান বিচারপতি জন বরার্ট তার পর্যবেক্ষণে বলেন, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা সম্পূর্ণভাবে প্রেসিডেন্টের এখতিয়ারভুক্ত। মার্কিন প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা মুসলিম বিরোধী, বাদীপক্ষের এমন অভিযোগও খারিজ করে দেন আদালত।

আদালতের এ রায়কে অসাংবিধানিক আখ্যা দিয়েছেন বেঞ্চের অপর দুই বিচারপতি রাথ বাডার গিনসবার্গ ও সোনিয়া সোতোমায়র। তাদের মতে, আদালত ধর্মীয় স্বাধীনতার নিশ্চয়তা প্রদানকারী সংবিধান রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছেন। এ ছাড়া এ রায়কে জাতীয় নিরাপত্তার মোড়কে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করার চক্রান্ত বলেও অভিহিত করেন তারা। এদিকে, রায়কে বিস্ময়কর সাফল্য উল্লেখ করে আদালতের প্রশংসা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। রায়ের পরপরই মার্কিন আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে বৈঠকে একে ট্রাম্প প্রশাসনের বিজয় বলেও আখ্যা দেন তিনি।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, মার্কিনিদের নিñিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিতে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। আদালতের রায় প্রমাণ করে, গণমাধ্যম ও ডেমোক্রেটদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাবিরোধী অবস্থান ভুল ছিল।

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি-মুসলিম প্রবেশমুক্ত যুক্তরাষ্ট্র বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ক্ষমতায় আসার পরপরই আটটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ট্রাম্প প্রশাসন। তীব্র সমালোচনার মুখে ইরাক ও চাদকে ওই তালিকে থেকে বাদ দিয়ে উত্তর কোরিয়া ও ভেনেজুয়েলার কর্মকর্তাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। হাওয়াই অঙ্গরাজ্য তাতে চ্যালেঞ্জ জানালে ফেডারেল আদালত মার্কিন প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশ বাস্তবায়ন স্থগিত করে দেন।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/২৭ জুন/এসকে

Loading...

Check Also

পশ্চিমবঙ্গে বুলবুলের আঘাতে নিহত ২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : ঘণ্টায় ১১৫ কিলোমিটার থেকে ১২৫ কিলোমিটার বাতাসের গতি নিয়ে ভারতের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *