Home / জেলার খবর / লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নৌকার হাল ধরতে চান ড. শামছুল কবির

লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নৌকার হাল ধরতে চান ড. শামছুল কবির

ইসমাইল হোসেন রবিন, লক্ষ্মীপুর থেকে : লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি-কমলনগর উপজেলায় পিছিয়ে পড়া উপকূলীয় এলাকার উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান অধ্যাপক ড. শামছুল কবির। আগামী সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনায়ন প্রত্যাশী তিনি। দল থেকে মনোনায়ন পেলে বিপুল ভোটে বিজয়ী লাভ করার সম্ভাবনা দেখছেন তিনি।

অধ্যাপক ড. শামছুল কবির কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক (বিএসসি) আবদুস সাত্তার ছেলে। ছয় ভাই-বোনের মধ্যে তিনি তৃতীয়। এছাড়াও ড. শামছুল কবির ঢাকা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং কমলনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

ড. শামছুল কবির জানান, রামগতি-কমলনগর নিয়ে গঠিত লক্ষ্মীপুর-৪ আসন থেকে তাকে নির্বাচিত করলে দুই উপজেলার ভাগ্য বদলের সম্ভবনা রয়েছে। মেঘনা নদী ভাঙ্গন থেকে অসহায় মানুষগুলোর শেষ সম্বল পৈত্রিক ভিটা মাটি রক্ষায় কাজ করবেন তিনি। দূর্গম অঞ্চলের সুবিধা বঞ্চিত দরিদ্র মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়া, অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্ছার, মানসম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা ও সু-স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করণ, অবোকাঠামো উন্নয়ন সহ রাজনৈতিক এবং সামাজিক সকল কাজে যথাযথ ভূমিকা রাখবেন। তাছাড়া ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন ও ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে রূপান্তর করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করার আশ্বাসে রামগতি ও কমলনগরবাসীকে সাথে নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে যাবেন তিনি। তাই আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে সকলের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেন ড. শামছুল কবির।

শামছুল কবির ১৯৮১ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ব্যক্তিগত জীবনে ১৯৯৭ সালে কমলনগরের চরলরেন্স উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ১৯৯৯ সালে ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় প্রথম বিভাগ অর্জন করেন। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ হতে বিএ(স্নাতক সম্মান) পরীক্ষায় দ্বিতীয় শ্রেণি ও ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০৫ সালে এমএ (স্নাতকোত্তর) প্রথম শ্রেণি উত্তীর্ণ হন। কর্মজীবনে ড. শামছুল কবির ২০১০সালে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে ঢাকা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। পর্যায়ক্রমে সহকারী অধ্যাপক ও পরে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। এছাড়াও তিনি ২০১৫ সাল থেকে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

উল্লেখ্য, শামছুল কবির জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আতিয়ার রহমানের তত্ত্বাবধানে মুক্তিযুদ্ধের আঞ্চলিক ইতিহাস, বৃহত্তর নোয়াখালী জেলা’ শীর্ষক অভিসন্দর্ভের উপর পিএইডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

শিক্ষকতার পাশাপাশি শামছুল কবির ২০১৩ সাল থেকে কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে (২০১০-২০১৩) কমলনগর উপজেলা আ’লীগের কার্যনিবাহী সদস্য, ২০০২-২০০৮ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়াউর রহমান হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তার আগে ২০০০-২০০২ সালে ওই হলের ছাত্রলীগের কার্যনিবাহী সদস্য ছিলেন। এছাড়াও তিনি লক্ষ্মীপুর যুব উন্নয়ন ফাউন্ডেশন, স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সামাজিক ও উন্নয়ন মূলক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/২১ মে/এসকে

Loading...

Check Also

নোয়াখালীতে ইউপি সদস্য গুলিবিদ্ধ

সালাহ উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী : নোয়াখালীর সদর উপজেলার ২ নম্বর দাদপুর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ও ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *