Home / জাতীয় / এবার ট্রাক চাপায় হাত-পা থেঁতলে গেল পরিচ্ছন্নকর্মীর

এবার ট্রাক চাপায় হাত-পা থেঁতলে গেল পরিচ্ছন্নকর্মীর

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীতে এবার বেপোয়ারা ট্রাক চাপায় কালু দাস (৫০) নামে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কপোরেশনের (ডিএসসিসি) এক পরিচ্ছন্নকর্মীর হাত-পা থেঁতলে গেছে। এছাড়াও তার মাথায় প্রচ- আঘাত লেগেছে। তবে থেঁতলে যাওয়া হাত ও পা কেটে ফেলতে হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক ট্রাকসহ চালককে আটক করেছে। অপরদিকে বাস- লেগুনার ধাক্কায় ফয়জুর রহমান রিপন (৪০) নামে এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ তার লাশ মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে রাজধানীর পুরান ঢাকার দয়াগঞ্জ সুইপার কলোনির সামনের একটি মার্কেটের পাশে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনার শিকার হন ডিএসসিসির পরিচ্ছন্নকর্মী কালু দাস। ঘটনার সময় ওই মার্কেটের পাশে রাস্তা পরিচ্ছন্নতার কাজ করছিলেন তিনি। তখন বেপরোয়া গতির একটি ট্রাক তাকে চাপা দেয়। এতে চাকায় পিষ্ট হয়ে তার ডান হাত-পা থেঁতলে যায়। মাথায়ও গুরুতর আঘাত পেয়ে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে। তখন আশপাশের লোকজনের সহায়তায় পুলিশ ধাওয়া করে চালকসহ ঘাতক ট্রাকটি আটক করে। এর আগে সহকর্মীসহ স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে গভীর রাতে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা প্রতিদিনকে জানান, দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ডিএসসিসি’র পরিচ্ছন্নকর্মীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হওয়ায় তার ডান হাত-পা থেঁতলে গেছে। চিকিৎসকরা বলেছেন, বড় ধরণের ব্যাধি এড়াতে দেহ থেকে তার থেঁতলে যাওয়া ডান হাত-পা বিচ্ছিন্ন করতে হবে। তাছাড়া তার মাথার আঘাতও গুরুতর। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলেও জরুরি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

অপরদিকে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় মোহাম্মদপুরের শ্যামলীর ট্রমা সেন্টারের সামনে দিয়ে হেটে কল্যাণপুরের বাসায় ফিরছিলেন মাংস সরবরাহকারী ব্যবসায়ী ফয়জুর রহমান রিপন। এসময় বেপরোয়া গতির প্রজাপতি পরিবহন নামে বেপরোয়া গতির যাত্রীবাহী একটি বাস ও লেগুনা তাকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। তখন স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ট্রমা সেন্টার হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের ছেলে নাসের আহমেদ অপু ঢাকা প্রতিদিনকে জানান, প্রতিদিনের মত সোমবার রাতে ধানমন্ডির তেহারি ঘর রেস্তোরায় মাংস সরবরাহ করে হেটে বাসায় ফিরছিলেন তার বাবা ফয়জুর রহমান রিপন। পথিমধ্যে বাস-লেগুনার চাপায় তার বাবার মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে। জানা গেছে, নিহত ফয়জুর রহমান রিপনের গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায়। সপরিবারে থাকতেন কল্যাণপুরের দক্ষিণ পাইকপাড়ার ৪৩০২ নম্বর ভাড়া বাড়িতে।

এদিকে গতকাল এ রিপোর্ট লেখাপর্যন্ত মোহাম্মদপুর থানায় যোগাযোগ করা হলে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জামাল উদ্দিন মীর বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা প্রতিদিনকে জানান, এ ঘটনায় বাস-লেগুনার চালককে আটকসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/১৫ মে/এসকে

Loading...

Check Also

দ. আফ্রিকায় আগুনে পুড়ে ৪ বাংলাদেশির মৃত্যু

ফেনী প্রতিনিধি : দক্ষিণ আফ্রিকার একটি দোকানে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের তিনজনসহ চার বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *