Home / আন্তর্জাতিক / ভিসা ছাড়াই এক মাস থাকার সুযোগ হাইনানে

ভিসা ছাড়াই এক মাস থাকার সুযোগ হাইনানে

ডেস্ক রিপোর্ট : চীনের সবচাইতে ছোট ও সর্বদক্ষিণের প্রদেশ হাইনানে ৫৯ দেশের পর্যটকরা ভিসা ছাড়াই এক মাস থাকতে পারবেন।
প্রদেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ বুধবার এ কথা জানায়। তারা বলেছে, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫৯ দেশের পর্যটকদল অথবা ব্যক্তি পর্যটকদের আগামী ১ মে থেকে হাইনান বেড়াতে আসার এবং এক মাস পর্যন্ত থাকার জন্য কোনো ভিসা লাগবে না। তবে শর্ত হলো, তাদের ভ্রমণ হতে হবে ট্র্যাভেল এজেন্সির মাধ্যমে।

এর আগে ২০০০ সালে চীনের এ প্রদেশটি ২১ দেশের পর্যটকদের ১৫ দিন ভিসাবিহীনভাবে অবস্থানের সুযোগ ঘোষণা করে। ২০১০ সালে ওই সুযোগপ্রাপ্ত দেশের সংখ্যা আরো পাঁচটি বাড়ানো হয়। এবার দেশের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি করে ৫৯ টি এবং অবস্থানের মেয়াদ এক মাস করা হলো।
হাইনান অভিবাসন কর্তৃপক্ষের একজন শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা বলেন, আরো বেশি হারে ভিনদেশী পর্যটক আকর্ষণ, স্থানীয় পর্যটনশিল্পের বিকাশে সহায়তা করা এবং বিদেশী নাগরিকের অভাব পূরণই নতুন নীতির লক্ষ্য।

গত সপ্তাহে চীনের নেতা শি চিনপিং একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিতে হাইনান সফর করার অল্প ক’দিন পরই চীন সরকার হাইনানকে অবাধ বাণিজ্য এলাকায় রূপান্তরের ঘোষণা দেয়, যেখানে বৃহৎ বিদেশী কম্পানির ব্যবসার সুযোগ থাকবে।

উল্লেখ্য, মাত্র কয়েক দশক আগেও হাইনানের অর্থনীতি ছিল মৎস্য শিকার ও কৃষিনির্ভর। আর এটি এখন পর্যটকদের অত্যন্ত আকর্ষণীয় গন্তব্যে রূপ নিয়েছে এবং এখানে সেবা খাতের বিপুল বিস্তৃতি ঘটেছে।

বিশ্বে স্পেন, ফ্রান্স ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরই পর্যটকদের আকর্ষণীয় গন্তব্য হচ্ছে চীন। পর্যটকদের আকর্ষণ করতে দেশটির আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ নগর বিদেশী পর্যটকদের ভিসাবিহীন অবস্থানের সুযোগ দিয়ে থাকে। তবে এ সুযোগ হাইনানের মতো এক মাস নয়, মাত্র ৭২ ঘণ্টা।

ঢাকা প্রতিদিন ডটকম/১৯ এপ্রিল/এসকে

Loading...

Check Also

জাতিসংঘের আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা প্রতিদিন.কম : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর পরিচালিত দমন-পীড়নের জন্য জাতিসংঘের সর্বোচ্চ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *